২৫ শে মার্চ একাত্তরের গণহত্যাঃ আন্তর্জাতিক দিবস হিসেবে স্বীকৃতির দাবী

22885827_1031808210292345_7095584531118237157_n

“২৫ মার্চ একাত্তর এর গণহত্যাঃ আন্তর্জাতিক দিবস হিসেবে স্বীকৃতির দাবী”

তারিখঃ শনিবার, ২৫ শে মার্চ, ২০১৭

স্থানঃ বিআইআইএসএস অডিটোরিয়াম

পৃথিবীর ইতিহাসে গণহত্যার মধ্যে ২৫ মার্চ এক অন্যতম বিরল ঘটনা। পাকিস্তানে স্বৈরাচারী শাসনের বিরুদ্ধে আন্দোলনকারী মুক্তিকামী বাঙালিদের কঠোর হস্তে দমনের জন্য ১৯৭১ সালের ২৫ মার্চে পাকিস্তান সামরিক বাহিনী সশস্ত্র অভিযান পরিচালনা করেছিলো। পাকিস্তান সৈন্যরা একযোগে পিলখানা, রাজারবাগ,  ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এবং ঢাকার বিভিন্ন স্থানে বাঙালিদের উপর ব্যাপক হত্যাযজ্ঞ চালায়। ১৯৪৮ সালের কনভেনশন অনুসারে ১৯৭১ সালের ২৫ মার্চ এর ভয়াবহ হত্যাকাণ্ড “গণহত্যা’’ হিসিবেই বিবেচিত। যদিও ২০১৫ সালের ১১ ই সেপ্টেম্বর জাতিসংঘের সাধারন পরিষদের রেজুলেশন নং- ৬৯/৩২৩ অনুসারে ৯ ডিসেম্বরকে আন্তর্জাতিক জাতিসংঘ দিবস হিসেবে স্বীকৃতি জানানো হয়। কিন্তু দীর্ঘ ৪৬ বছর পর বাংলাদেশ সরকার ২৫ মার্চ কে আন্তর্জাতিক গণহত্যা দিবস হিসেবে স্বীকৃতির জন্য জাতিসংঘের নিকট যথাযথ প্রস্তাবনা রাখার জন্য  পদক্ষেপ গ্রহন করবেন বলে আশা করে বাংলাদেশ হেরিটেজ ফাউন্ডেশন।

সেই লক্ষ্য কে সামনে রেখে বাংলাদেশ হেরিটেজ ফাউন্ডেশন  ২৫ মার্চ  ২০১৭ তারিখে “২৫ মার্চ একাত্তর এর গণহত্যাঃ আন্তর্জাতিক দিবস হিসেবে স্বীকৃতির দাবী” এই শিরোনামে একটি আলোচনা সভার আয়োজন করে। উক্ত আলোচনার প্রধান উদ্দেশ্য ছিল বাংলাদেশ সরকারের গৃহীত পদক্ষেপকে সমর্থন করে ২৫ মার্চ কে আন্তর্জাতিক গণহত্যা দিবস হিসেবে স্বীকৃতির দাবী জানানো। উক্ত আলোচনা সভার সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ হেরিটেজ ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সাবেক সচিব  ও রাষ্ট্রদূত, জনাব ওয়ালিউর রহমান।  তিনি বলেন, জাতীয় সংসদের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ২৫ মার্চ আন্তর্জাতিক গণহত্যা দিবস হিসেবে স্বীকৃতির  দাবী জানিয়ে পালন করছি। মুক্তিযুদ্ধের সময় ২৫ মার্চ গণহত্যার ভয়াবহতার তথ্য প্রকাশ এবং আন্তর্জাতিক স্বীকৃতির জন্য সরকারের সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় কূটনৈতিক আলোচনা গুরুত্বের সাথে করবে বলে আশা রাখি। উক্ত আলোচনাসভার প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন মুক্তিজুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী জনাব আ ক ম মোজাম্মেল হক এমপি। তিনি বলেন কেবিনেটের সংক্ষিপ্ত মিটিং এ আলাপ আলোচনার প্রেক্ষিতে সারা দেশে কিছু নির্দিষ্ট সংখ্যক কর্মসূচি গ্রহন করা হয়েছে। এবং আগামী বছর থেকে যথাযথ মর্যাদায় দিবসটি পালনের উদ্যোগ গ্রহণ করছে সরকার। যথাযথ পদক্ষেপ এর মাধ্যমে জাতিসংঘ থেকেও যেন ২৫ মার্চ আন্তর্জাতিক গণহত্যা দিবস হিসেবে স্বীকৃতপ্রাপ্ত হয় সে বিষয়ে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন আলোচনাসভায় উপস্থিত অন্যান্য বক্তারা।

BHF in Print Media

Events

 

Photo Gallery

Copyright © 2014 BHF- All rights reserved. Powered by: i-make IT Solution

User Login